BIP / বিপ একাউন্ট খোলার নিয়ম ও পদ্ধতি এবং সুবিধা সমূহ

BIP / বিপ একাউন্ট খোলার নিয়ম;- বাংলাদেশ, পাকিস্তান সহ বিশ্বের অধিকাংশ মুুুুুসলিম দেশগুলোতে ইতিমধ্যে আলোচনা সমালোচনার ঝড় তুলেছে বিপ অ্যাপ। তবে, যারা বিপ এর নাম নতুন করে শুনছেন তাদের বুঝতে কষ্ট হচ্ছে যে, আসলে বিপ অ্যাপ কি ও কেন? কেন বিপকে ঘিরে এত আলোচনা সমালোচনা? এবং কিভাবে বিপ একাউন্ট খুলবেন? ইত্যাদি ইত্যাদি। তাদের জন্য আজকের এই পোস্টটি। পোস্টটি পড়লে বিপ নিয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন বলে আশা করি;-

BIP / বিপ কি?

ইমু হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং সফটওয়্যার গুলোর মত বিপ হলো একটি জনপ্রিয় মেসেজিং সফটওয়্যার। ইমু, হোয়াটসঅ্যাপ থেকে অতিরিক্ত সুবিধা জনক কয়েকটি ফিচার দিয়ে বিপকে সমৃদ্ধ করা হয়েছে, এবং ইমু ও হোয়াটসঅ্যাপ এর সেরা বিকল্প হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে। বিপ এর সাহায্যে আপনি যে কোন টেক্সট, ভয়েস রেকর্ড, অডিও, ভিডিও কলিং এর মাধ্যমে বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যোগাযোগ করতে পারবেন।

বীপকে নিয়ে নতুন করে আলোচনা সমালোচনা করার কারণ

আজ থেকে কয়েকবছর আগেই বিপ সফটওয়্যারটি প্লে স্টোরে আসে। দারুণ ডেলিভারিতে ফিচার দিয়ে সমৃদ্ধ করার পরও জনপ্রিয় হয়ে উঠেনি বিপ। কেননা ইমু, হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং সফটওয়্যার দিয়েই সুন্দর ভাবে আমরা যোগাযোগ ব্যবস্থা করতে পারতাম।

কিন্তু, এদিকে সাম্প্রতিক কালে ইমুর অতিরিক্ত ও অশ্লীল ভিডিও বিজ্ঞাপন দেখতে দেখতে ইউজাররা একদমই ক্লান্ত। তাই আমার মত অনেকেই আগ থেকেই ইমু ব্যবহার ছেড়ে দিয়েছেন বা দিবেন। অন্য দিক জনপ্রিয় মেসেজিং সফটওয়্যার হোয়াটসঅ্যাপ এর নতুন ট্রান্স অপ কন্ডিশন এর মধ্যে বেশ পরিবর্তন দেখা দিয়েছে, এবং জানা গেছে তারা গ্রাহকে সব তথ্য সংগ্রহ করে রাখবে।

এর আগেও হোয়াটসঅ্যাপ এর বিরুদ্ধে গ্রাহকদের তথ্য চুরি করে চওড়া দামে বিক্রি করার অভিযোগ তুলেছে। মোট কথা মেসেজিং সফটওয়্যার গুলোর প্রতি চরম হতাশা ও ঘৃণা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিপ।

আরো পড়ুন

আর তাই, জনপ্রিয় মুসলিম শাষক এরদোয়ান নাকি ঘোষণা দিয়েছে ইমু, হোয়াটসঅ্যাপ বয়কট করে বিপ একাউন্ট খোলার জন্য। যদিও এই সম্পর্কে সুস্পষ্ট কোন প্রমাণ পায়নি পদাবলী টিম। তবুও, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইমুর বিকল্প হিসাবে বীপ ব্যবহার করা উচিৎ।

বিপ একাউন্ট খোলার সুবিধা

  • ক্লিয়ার সাউন্ড সিস্টেম।
  • অশ্লীল বিজ্ঞাপন মুক্ত।
  • তুলবামূলক নিরাপদ।
  • ইউজারদের তথ্য সংগ্রহ করা হবে না বলে জানা যায়।
  • ভার্চ্যুয়াল নাম্বার দিয়ে একাউন্ট খোলা যায়।
  • মুসলিমদের তৈরিকৃত অ্যাপ।
  • সর্বপরি ইমু, হোয়াটসঅ্যাপ থেকে অতিরিক্ত ফিচার সমৃদ্ধ।

বিপ একাউন্ট খোলার নিয়ম ও পদ্ধতি

১/ প্রথমে প্লে স্টোরে গিয়ে সার্চ করুন বিপ মেসেজিং বা BIp, অথবা এইখানে ক্লিক করে সফটওয়্যার ডাউনলোড করে নিন।

২/ সফটওয়্যারটি ডাউনলোড হয়ে গেলে get bip’n এ ক্লিক করুন। এবং পরবর্তী ধাপ অনুসরণ করুন।

৩/ বিপের প্রাইভেসি পলিসি ভালো করে মনযোগ সহ কয়েকবার পড়ে নিন। এবং পরবর্তী ধাপ অনুসরণ করুন।

৪/ বিপকে আপনার কল ও পরিচালনা করার অনুমতি দেন। এবং পরবর্তী ধাপ অনুসরণ করুন।

৫/ আপনার দেশের সিম কোড (বাংলাদেশঃ- +880) নির্বাচন করুন। তারপর 0 বাদে আপনার নাম্বার দিন, এবং গেট ভিরিপেকশন কোড লেখায় ক্লিক করুন। (আপনি চাইলে ভার্চুয়াল নাম্বার দিয়েও খুলতে পারেন)

৬/ ভিপকে আপনার ছবি, মিডিয়া এবং ফাইলে প্রবেশ করার অনুমতি দিন।

৭/ আপনার নাম সেট করুন এবং ডোন লেখায় ক্লিক করুন। ব্যাস বিপ একাউন্ট খোলা শেষ

বিপ সফটওয়্যার রিভিউ

bip ইনস্টল করেছি। চমৎকার ক্লিয়ার সাউন্ড। অটোমেটিক ভাবে আমার কন্টাক্ট তালিকায় আরও যাদের ফোনে এপসটি আছে তাদের কাছ থেকে মেসেজ পাচ্ছি।

কিন্তু আমার কাছে ভালো লাগার কারণ হচ্ছে, মুসলমানদের একটা মিডিয়া আমরা পেয়েছি। হতাশাবাদী ভাইবোন যারা মনে করেন পাশ্চাত্যের দয়া ছাড়া প্রযুক্তিগত কিছুই আমাদের পক্ষে করা সম্ভব না তারা হতাশা কিছুটা কাটিয়ে উঠবেন বলেই বিশ্বাস করি।

এই খরায় তপ্ত দিন একদিন শেষ হবে। ঝর্ণার পাশে একদিন সবাই নাশিদ শুনব তন্ময় হয়ে।

কিন্তু সেইজন্য প্রয়োজন কিছু সাহসী মানুষের, অন্তত তুর্কিদের মত একগুঁয়ে কিছু মানুষের।

আগামী দিনে যুদ্ধটা হবে বুদ্ধি এবং প্রযুক্তির। সেই যুদ্ধের সেনানীদের জন্য অধীর হয়ে অপেক্ষমাণ পৃথিবী নামক আমাদের এই গ্রহটি।

©® সাইমুম সাদী

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *