মোবাইলে নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি ও নিয়ম 2021

উন্নত দেশ গুলোর সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও দিন দিন প্রযুক্তি জয়জয়কার বিস্তার লাভ করছে। হাতে হাতে লেনদেনের যুগ শেষ হয়েছে সেই ক’যুগ আগেই। তারপর থেকে শুরু হয়েছে ব্যাংক ও কার্ড এর মাধ্যমে লেনদেন এর যুগ।

লেনদেনকে সহজিকরণের লক্ষ্যে সাম্প্রতিককালে তৈরি করা হয়েছে “ডিজিটাল মোবাইল ব্যাংকিং”। যার সাহায্যে খুব সহজেই এক যায়গা থেকে অন্য জায়গায় লেনদেন করা যায়। তবে, ডিজিটাল মোবাইল ব্যাংকিং গুলোর চার্জ তুলনামূলক বাড়তি হওয়ার কারণে বাংলাদেশ সরকার নিয়ে এলো ” নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সেবা”। আজকে আমি নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো ।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং কি?

নগদ হলো বাংলাদেশ ডাক বিভাগের মোবাইল ফোন ভিত্তিক একটি ডিজিটাল আর্থিক সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। এটি থ্রার্ড ওয়েভ টেকনোলজি লিমিটেড কর্তৃক পরিচালিত। একটি নগদ একাউন্ট খুলে দেশের অন্য স্থানের যে কোন নগদ একাউন্টে খুব সহজেই লেনদেন করা যাবে। নগদ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানুন।

নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম

অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং তথা বিকাশ, রকেট ইত্যাদি থেকে নগদ একাউন্ট খোলা এক দমই সহজ। কেননা একমাত্র নগদেই দিচ্ছে ৩ ভাবে নগদ একাউন্ট খোলার সুযোগ। ১/ ইউএসএসডি কোড। ২/ নগদ অ্যাপস। ৩/ নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্ট।

ব্যস হয়ে গেলো আপনার নগদ একাউন্ট । এবার লেনদেন করুন ইচ্ছেমতো।

ইউএসএসডি USSD কোড ব্যবহার করে নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

নগদ একাউন্ট খোলার সবচেয়ে সহজ ও ভালো উপায় হলো USSD কোড ব্যবহার করে নগদ একাউন্ট খোলা। মাত্র দুই ধাপেই USSD কোড ব্যবহার করে কোন রকম মোবাইল অ্যাপ ছাড়াই নগদ একাউন্ট খোলা যাবে। ইউএসএসডি কোড ব্যবহার করে নগদ একাউন্ট খুলতে চাইলে নিচের দুইটা ধাপ অনুসরণ করুন।

  • প্রথমে আপনার মোবাইলে *১৬৭# ইউএসএসডি কোডটি ডায়াল করুন
  • তারপর আপনার মনে থাকে এমন একটি ৪ ডিজিটের পিন সেটআপ করুন। পুনরায় পিন টাইপ করে কনফার্ম করুন (গোপন পিনটি কাউকে বলবেন না)

মোবাইল অ্যাপ দ্বারা নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম

মোবাইল অ্যাপ দ্বারা নগদ একাউন্ট খুলতে চাইলে প্রথমে নগদ অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন। তারপরে অ্যাপসের নির্দেশনাবলী অনুসরণ করে আপনি নিজে নিজেই নগদ একাউন্ট খুলে পেলতে পারবেন। আপনাদের সুবিধার্থে আমি তবুও বিস্তারিত লিখছি।

১/ প্লে স্টোর থেকে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।

২/ অ্যাপটি অপেন করুন এবং রেজিস্ট্রেশন লেখায় ক্লিক করুন।

৩/ যে নাম্বার দিয়ে নগদ একাউন্ট খুলতে চান সে মোবাইল নাম্বারটি দিন। এবং পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন।

৪/ আপনার মোবাইল অপারেটর। তথা সিম কোম্পানির নাম নির্বাচন করুন। তারপর পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন।

৫/ আপনার সিম অপারেটর কোম্পানিকে এনআইডির যে সব তথ্য দিয়েছেন তাহা নগদকে প্রদান করার ও লিংকে ক্লিক করে নগদের শর্তবলী পড়ে নগদ একাউন্ট খুলতে রাজি থাকলে পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন।

৬/ আপনি নগদ একাউন্ট খুলে আপনার জমা থাকা টাকা থেকে ইন্টারেস্ট বা মুনাফা পেতে চান? পেতে চাইলে হ্যাঁ বাটনে আর না পেতে চাইলে না বাটনে ক্লিক করুন। এবং পরবর্তী ধাপে যান।

৭/ এরপর আপনাকে ছবি তুলতে হবে। ছবিতে আপনার সম্পূর্ণ মুখমণ্ডল স্পষ্ট রাখবেন এবংকি যদি চোখে চশমা থাকে তাহলে খুলে পেলুন। ছবি তোলার চারপাশে যথেষ্ট আলো থাকতে হবে, আপনার চেহারা বা ক্যামেরা স্থির রাখুন। ছবি তুলতে কয়েকবার চোখের পলক ফেলুন। ছবি তুলতে পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন। সফলভাবে ছবি তোলা হলে পরবর্তী ধাপে যান।

৮/ প্রাথমিক পিন সেটআপ করুন এরপর আবার কনফার্ম পিন সেটআপ করুন।

৯/ তারপর আপনা নাম্বারে একটি ওটিপি কোড যাবে তা প্রবেশ করান।

১০/ সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে সফলভাবে আপনার নগদ একাউন্ট খোলা হয়ে যাবে।

নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্ট থেকে একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

এখন থেকে খুব সহজেই আপনি নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্ট থেকে ফ্রীতে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন। নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্ট থেকে একাউন্ট খুলতে চাইলে আপনার নিকটতম নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্টে ১/ভোটার আইডি কার্ডের ফটো কপি ২/ পাসপোর্ট সাইজের ২ কপি ছবি ৩/ আপনার সিম (যে নাম্বারে একাউন্ট খুলতে চান) ও মোবাইল নিয়ে যোগাযোগ করুন। তারা আপনাকে একটা ফরম দিবে এইটা পূরণ করে ৫০ টাকা ক্যাশইন করলেই আপনার নগদ মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্টটি সক্রিয় করে দেওয়া হবে।

নগদ একাউন্টের সুবিধা

নগদ একাউন্টে বেশ কয়েকটি সুবিধা রয়েছে। আমি উল্লেখযোগ্য কয়েকটি সুবিধা নিয়ে আলোচনা করলাম।

  • ক্যাশইন সুবিধাঃ-আপনি চাইলে আপনার নিকটতম নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্টে গিয়ে খুব সহজেই নগদ একাউন্টে নতুন ব্যালেন্স যোগ করতে পারবেন।
  • ক্যাশ আউট সুবিধাঃ– একমাত্র নগদেই দিচ্ছে সবচেয়ে কম খরচে মাত্র ৯.৯৯ পয়সায় ক্যাশ আউটের সুবিধা। আপনি চাইলে আপনার নিকটতম নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্টে গিয়ে যে কোন মূহুর্তে টাকা উত্তোলন বা ক্যাশ আউট করতে পারবেন।
  • অ্যাড মানি – কার্ড টু নগদ যদি কখনো আপনার নগদ একাউন্টের টাকা শেষ হয়ে যায় তাহলে আপনি চাইলে আপনার ভিসা কিংবা মাস্টার কার্ড থেকেও নগদ একাউন্টে টাকা আনতে পারবেন।
  • অ্যাড মানি – ব্যাংক টু নগদ যদি কখনো আপনার নগদ মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্টের টাকা শেষ হয়ে যায় তাহলে দুুুুুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। এখন আপনি চাইলে আপনার ব্যাংক থেকেও নগদ একাউন্টে টাকা আনতে পারবেন।
  • সেন্ড মানি সুবিধাঃ– একমাত্র নগদেই দিচ্ছে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর এক একাউন্ট থেকে অন্য একাউন্টে ফ্রীতেই (অ্যাপসের মাধ্যমে) সেন্ডমানি করার সুযোগ।
  • বিল পেঃ- এখন থেকে নগদ দিচ্ছে কারেন্ট ও বিদ্যুৎ বিল সহ অসংখ্য ই-কমার্স সাইটে বিল পে করার সুযুগ।
  • মোবাইল রিসার্জঃ- এখন থেকে আর মোবাইল রিসার্জ করার জন্য ফ্লেক্সিলোড দোকানে গিয়ে ঝামেলা করার দরকার নাই।এখন থেকে নগদ দিচ্ছে খুব সহজেই মোবাইল রিসার্জ করার সুযোগ।
  • সঞ্চয়ঃ-একমাত্র নগদেই দিচ্ছে একাউন্টে টাকা জমা রেখে ইন্টারেস্ট পাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ।

নগদ ক্যাশইন

আপনার যদি একটি নগদ একাউন্ট থেকে থাকে, এবং আপনি আপনার নগদ একাউন্টে ক্যাশইন করতে চান তাহলে আপনি আপনার নিকটতম নগদ উদ্দোক্তা পয়েন্টে যান। এবং উদ্দোক্তাকে আপনার ক্যাশইনের কথা জানান। তারপর উদ্যোক্তাকে টাকা দিলে সে আপনার সে রেজিস্টার খাতায় টাকার পরিমান ও আপনার নগদ অ্যাকাউন্ট নাম্বার লিখে রাখবে। এবং আপনার একাউন্টে ক্যাশইন করে দিবে।

নগদ ক্যাশ আউট চার্জ

নগদ ক্যাশ আউট চার্জ বিভিন্ন বিষয়ের উপর নির্ভর করে হিসাব করা হয়। ১/ নগদ অ্যাপ ও ইউএসএসডি কোড।

নগদ অ্যাপে ক্যাশ আউট চার্জ

মাধ্যমক্যাশ আউট চার্জ – প্রতি হাজারে
(ভ্যাট ছাড়া)
ক্যাশ আউট চার্জ – প্রতি হাজারে
(ভ্যাট সহ)
অ্যাপ৯.৯৯ টাকা১১.৪৯ টাকা
ইউএসএসডি১২.৯৯ টাকা১৪.৯৪ টাকা
আরো বিস্তারিত জানতে পড়ুন নগদ ওয়েবসাইটে

অ্যাড মানি – কার্ড টু নগদ

নগদ নতুন গ্রাহকদের লেনদেন সহজীকরণের লক্ষ্যে নতুন একটা ফিচার যোগ করছে তা হলো;- নগদ একাউন্টে টাকা শেষ হলে ভিসা বা মাস্টারকার্ড থেকে নগদ একাউন্টে টাকা আনা যাবে৷ বিস্তারিত জানতে পড়ুন নগদ ওয়েবসাইটে

অ্যাড মানি – ব্যাংক টু নগদ

নগদ একাউন্টে টাকা শেষ হলেও এখন থেকে আর কোম চিন্তা নেই। নগদে এখন অনলাইন ভিত্তিক ব্যাংক গুলো থেকে টাকা আনতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে নগদের ওয়েবসাইটে পড়ুন।

নগদ ইন্টারেস্ট বা মুনাফার হার

নগদ তার একাউন্টে আপনার রাখা টাকা গুলোর উপর সর্বোচ্চ মুনাফা দিচ্ছে। এখন নগদ দিচ্ছে ১০০১ টাকা থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত ৫% মুনাফা। আর ৫০০১ টাকা থেকে শুরু করে ৩০,০০০ টাকার জন্য ৭.৫% মুনাফা। মাস শেষ মুনাফা দেওয়া হবে। বিস্তারিত জানতে পড়ুন নগদ ওয়েবসাইটে

নগদ অফার সমূহ

নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম

অনেকেই নগদ একাউন্ট দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আসলে নগদ একাউন্ট দুই ভাবে দেখা যায়। ১/ নগদ অ্যাপে ২/ ইউএসএসডি কোড ডায়াল করে। আপনার যদি নগদ অ্যাপ না থেকে থাকে তাহলে প্রথমে নগদ অ্যাপ ডাউনলোড করুন। তারপর নগদ অ্যাপটি লগইন করেই নগদ একাউন্টের ব্যালেন্স ইত্যাদি দেখতে পারবেন।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং ব্যালেন্স চেক কোড

আর আপনার যদি নগদ একাউন্ট না থেকে থাকে তাহলে আপনার মোবাইল থেকেও নগদ একাউন্ট দেখতে পাবেন। নগদ একাউন্ট দেখতে চাইলে ডায়াল করুন *167#

নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি
নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি

তারপর ক্যাশ আউট করতে চাইলে ১ ডায়াল করুন। সেন্ডমানি করতে চাইলে দুই ডায়াল করুন। মোবাইল রিসার্জ করতে চাইলে ৩ ডায়াল করুন। কোন ই-কমার্স সাইটে পেমেন্ট করতে চাইলে চার ডায়াল করুন বিল পে করতে চাইলে ৫ ডায়াল করুন। my dps জানতে চাইলে ৬ ডায়াল করুন। স্বাধীন পে করতে চাইলে ৭ ডায়াল করুন। My nagad তথা নগদ ব্যালেন্স, পিন রিসেট ইত্যাদি জানতে চাইলে ৮ ডায়াল করুন। তারপর সেন্ড/ পাঠাম লেখায় ক্লিক করুন।

এবার ব্যালেন্স জানতে চাইলে ১ ক্লিক করুন৷। তারপর পিন চাইলে পিন দিন। তাহলেই আপনার নগদ একাউন্টের ব্যালেন্স দেখতে পাবেন।

আরো পড়ুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shopping Cart